1. adammalek21@gmail.com : News Desk : News Desk
  2. rashad.vai@gmail.com : cp :
সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০, ০৯:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
প্রতিপক্ষের ষড়যন্ত্রের জালে দিশেহারা রুবেলের পরিবারবর্গ লক্ষ্মীপুরে সেচ্ছাসেবক লীগ নেতার মুক্তি দাবীতে আল্টিমেটাম দিয়ে মানববন্ধন লক্ষ্মীপুরের মজুচৌধুরী হাটের ফেরীঘাট ও লঞ্চ ঘাট এর নতুন ইজারা পেলেন বাবুল ছৈয়াল হিরামনি ধর্ষণ ও হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন শ্রীনগরে বেদে ও দুঃস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ দৈনিক নতুন দিন- এর কমলগঞ্জ প্রতিনিধি করোণা আক্রান্ত সিরাজদিখানে ত্রান বিতরণে স্বজনপ্রীতির প্রতিবাদ করায় ইউপি সদস্যের মামলা কালীগঞ্জে দুলছে পাকা ধান চিন্তিত কৃষকের মন মিথ্যা অভিযোগের শিকার হলেন দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সোহেল করোনা যুদ্ধে মানবতার অগ্রদূত রাজু আহমেদ

ঢাকাতেই করোনা আক্রান্ত সাড়ে ৭ লাখের বেশি— ইকোনমিস্ট

  • সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ৬ জুন, ২০২০
  • ৪২ জন সংবাদটি পড়েছেন

অনলাইন ডেস্ক:

শুধুমাত্র রাজধানী ঢাকায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৭ লাখের বেশি থাকতে পারে বলে দাবি করেছে ব্রিটেনের প্রভাবশালী সাময়িকী দ্য ইকোনমিস্ট। গত বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশের (আইসিডিডিআরবি) বরাত দিয়ে ‘বাংলাদেশ, ভারত এবং পাকিস্তানে দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ’ শিরোনামের এক প্রতিবেদনে এ দাবি করেছে লন্ডনের এই সাময়িকী।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে দ্য ইকোনমিস্ট বলছে, বাংলাদেশে সরকারিভাবে করোনায় আক্রান্তের যে সংখ্যা জানানো হচ্ছে প্রকৃত সংখ্যা তার চেয়েও অনেক বেশি। কম পরীক্ষার অর্থই হচ্ছে প্রকৃত চিত্র আরও বেশি খারাপ হতে পারে।

ইকোনমিস্ট বলছে, আইসিডিডিআরবির কর্মকর্তা জন ক্লেমেনসের অনুমান, বাংলাদেশের রাজধানীতে ইতিমধ্যে সাড়ে ৭ লাখের বেশি আক্রান্তের সংখ্যা হতে পারে। গতকাল শুক্রবার (৫ জুন) পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬০ হাজার ৩৯১ জন। এদের প্রায় অর্ধেকই ঢাকার। এই দিন সকাল ৮টা অবধি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ৩০ জন নিহত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়েছে ৮১১।

এছাড়া করোনার বিস্তার ঠেকাতে জারিকৃত লকডাউনের বিধি-নিষেধের বেশিরভাগই গত সপ্তাহ থেকে তুলে নিতে শুরু করেছে বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং ভারত। ১৭০ কোটি মানুষকে মুক্ত করে দেওয়ায় বিপর্যস্ত অর্থনীতির এই অঞ্চলের এক পঞ্চমাংশ স্বস্তিতে ফিরবে। কিন্তু লকডাউন প্রত্যাহার করে নেওয়ায় সংক্রমণ আবারও দ্রুতগতিতে বাড়তে পারে বলে মনে করে ব্রিটিশ এই সাময়িকী।

ইকোনমিস্ট বলছে, তিন দেশে সরকারিভাবে প্রকাশিত সাড়ে তিন লাখের বেশি আক্রান্ত এবং প্রায় ৯ লাখ মানুষের মৃত্যু নিয়ে পরিসংখ্যানকে অপেক্ষাকৃত পরিমিত দেখাচ্ছে। তবে এখনো অনেক মানুষ আক্রান্ত হলেও গণনার বাইরে রয়েছেন। লকডাউন প্রত্যাহারের আগে থেকেই তা নিয়ে ভয় ছিল। এখন সেই ভয় আরো বাড়ছে। বর্তমান ধারায় প্রতি দুই সপ্তাহে আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হচ্ছে। তবে কিছু ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়েছে, এই অঞ্চলে করোনা সর্বোচ্চ চূড়ায় পৌঁছাবে আগামী জুলাইয়ের শেষের দিকে। শুধু তাই নয়, সেই সময়ে সরকারি পরিসংখ্যানেও আক্রান্ত ৫০ লাখে পৌঁছাতে পারে এবং মৃত্যু ছাড়াতে পারে দেড় লাখ।

অনুগ্রহ করে আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© ২০২০ চলতিপত্র - সম্পাদক কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরিক্ষত
Theme Customized By BreakingNews