1. adammalek21@gmail.com : News Desk : News Desk
  2. rashad.vai@gmail.com : cp :
শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০, ০৫:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
হাইকোর্টের নির্দেশনা সত্ত্বেও ১২ বছরেও কলেজে প্রবেশ করতে পারছেন না উপাধ্যক্ষ আদালতে ১৪৪ধারা জারী জমি দখল করে ভবন নির্মান জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা জানিয়েছে শ্রমিকলীগ নেতা মামুনুর রশিদ মামুন লক্ষ্মীপুরে বিদ্যুৎ লাইন দেয়ার আশ্বাসে দালাল মহিমের পকেট ভারি ‍আশুলিয়ায় রুহুল আমিন মেম্বারের নামে মিথ্যা সংবাদ প্রচার — জনমনে ক্ষোভ লক্ষ্মীপুরে মানবপ্রেমীদের ঈদ পূর্নমিলনী শ্রীনগরে শেখ কামালের ৭১তম জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল মানবতার কল্যানে আদর্শ মানব কল্যান সংগঠন লক্ষ্মীপুরে প্রবাসী পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলায় আহত -২, ঘর-বাড়ী ভাংচুর প্রতিপক্ষের ষড়যন্ত্রের জালে দিশেহারা রুবেলের পরিবারবর্গ

খিলগাঁও এর কৌশলী এক ইয়াবা কারবারির ইতিবৃত্ত

  • সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ২৮ জুলাই, ২০২০
  • ১৩০ জন সংবাদটি পড়েছেন

বিশেষ প্রতিবেদক
সদ্য রাজধানীর খিলগাঁও এর কুক্ষত ইয়াবা সন্ত্রাসী রাজিব এনকাউন্টারে মারা যাওয়ার পর এলাকার মাদক অনেকটা থমকে দাঁড়িয়েছে সেই সাথে ইয়াবা কারবারিদের মধ্যে দৌড়ঝাপ শুরু হয়েছে । কিন্ত এরই মধ্যে একাধিক মাদক মামলার আসামি এলাকার প্রভাবশালী পুলিশ সোর্স আবদুর রহমান মল্লিক ওরফে নার কাটা ওরফে ফরমা আবদুর রহমান, (৩৮) অভিনব কায়দায় সক্রিয় রয়েছে। আর এতে এলাকা বাসীর মধ্যে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে বলে সুত্র জানায়। সুত্র আরো জানায়, ২০০৬-২০০৭ ইং সালের দিকে খিলগাঁও থানার পুলিশের ডিউটি গাড়ির চালক হিসাবে কাজ করার সুবাদে আবদুর রহমান, মাদক কারবারিদের সাথে সক্ষ্যতা গড়ে। ফেনসিডিল কারবারিতে জড়িয়ে পড়ে, এর পর সে ধিরে ধিরে সোর্স পরিচয় ধারণ করে, নির্বিগ্নে হরদমে এলাকার মাদক কারবারিদের কাছ থেকে বখরা আদায় ও ফেনসিডিল এর কারবার জমিয়ে লাখ লাখ টাকা আয় করতে মরিয়া হয়ে উঠে, এরই মধ্যে ২০০৮ সালে RAB-3 আবদুর রহমান মল্লিকে ৫০০ শত বোতল ফেনসিডিল সহ তাঁর নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে। ঐ মামলায় কয়েক মাস কারাগারে থেকে জামিনে বেরিয়ে সুকৌশলে সে খিলগাঁও থানা পুলিশের সাথে ফের সক্ষ্যতা গড়ে তোলে। এবং নিজের টাকায় গাড়ি কিনে সেই গাড়িটি থানার ডিউটির কাজে লাগিয়ে তিনি থানার ড্রাইভারি পরিচিতি রক্ষা করেন। এভাবে সে মাদকের কারবারে সক্রিয় হয়ে উঠে। এইভাবে সে দীর্ঘ সময় ধরে পুলিশের সাথে থেকে পুলিশের চোখে ধূলা দিয়ে, বেপরোয়া ভাবে ইয়াবার কারবারির গডফাদার হিসাবে নিরাপদে টাকা পয়সা কামিয়ে আসছিলো। এরই মধ্যে আবদুর রহমান মল্লিক, চলতি বছরের প্রথম দিকে তারই আস্থা ভাজন ও কর্তব্যরত খিলগাঁও থানার এস আই মনিরের বিচক্ষনতার কাছে ধরাশায়ী হয়, আবদুর রহমান মল্লিক। তিনি রহমান মল্লিকে ইয়াবা বিনিময়এর সময় হাতে নাতে প্রমাণ সাপেক্ষ গ্রেপ্তার করে ৫০০ পিচ ইয়াবা সহ আদালতে পাঠান। এর পর থেকেই আবদুর রহমান মল্লিক, এর আসল চেহারা খিলগাঁও থানা পুলিশ সহ এলাকার লোকজনে চোখে ধরা পড়ে যায়। কিন্তু তার বিশাল প্রভাবের কাছে এস আই মনিরও বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য সহ অনেককে চরম খেসারত দিতে হয়েছে। বাকী পরবর্তীতে দেখুন।

অনুগ্রহ করে আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© ২০২০ চলতিপত্র - সম্পাদক কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরিক্ষত
Theme Customized By BreakingNews